পিতার পরিচয় গোপন রেখেই মা হচ্ছেন লুসি — all-banglanews
বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
হোম / বিনোদন / পিতার পরিচয় গোপন রেখেই মা হচ্ছেন লুসি

পিতার পরিচয় গোপন রেখেই মা হচ্ছেন লুসি

পিতার পরিচয় গোপন রেখেই মা হচ্ছেন লুসি
পিতার পরিচয় গোপন রেখেই মা হচ্ছেন লুসি

পিতার পরিচয় গোপন রেখেই প্রথম সন্তানের মা হচ্ছেন ব্রিটিশ রিয়েলিটি টেলিভিশন তারকা ও গ্লামারাস মডেল জেমা লুসি। তবে তিনি জানিয়েছেন, ‘অপ্রত্যাশিতভাবে তিনি সন্তান সম্ভবা হয়ে পড়েছেন এবং এটাই তার জীবনে প্রথম এমন ঘটনা’। লুসির বয়স এখন ৩০ বছর। এ সম্পর্কে ব্রিটেনের দ্যা সান অনলাইনের সাথে খোলামেলা কথা বললেও একটি জায়গায় রহস্য লুকিয়ে রেখেছেন তিনি। তা হল কার সন্তান তার পেটে ধারণ করছেন তা তিনি কাউকে বলবেন না। তবে সন্তান জন্ম দিতে গিয়ে তিনি জীবনের সবচেয়ে কঠিন সময় পার করছেন এবং এতে প্রচ- এক বিষণ্নতা কাজ করে তা স্বীকার করেছেন।
সম্প্রতি তিনি দেখতে পান সকালে ঘুম থেকে উঠতে গিয়ে অসুস্থ বোধ করছেন। তারপর পরীক্ষা-নিরীক্ষায় দেখা যায় তিনি মা হতে চলেছেন। এ কথা শুনেই যেন চমকে গিয়েছিলেন। ‘সেলিব্রেটি বিগ ব্রাদার’ তারকা জেমা লুসি এমন খবর শোনার পর নিজেকে একা ও বিপন্ন ভাবতে থাকেন। বন্ধুবান্ধব ও পরিবার থেকে নিজেকে আলাদা করে ফেলেন। ঘোরাঘুরি করতে থাকেন অন্ধকারের মধ্যে। এমন এক বিষণ্ন অবস্থা থেকে তিনি বেরিয়ে এসেছেন। নিজে নিজে উপলব্ধি করেছেন- হ্যাঁ, আমিও সন্তান ধারণ করতে পারি।
নিজের মুখে স্বীকার করেছেন, যখন আমি নিজেকে অন্তঃসত্ত্বা দেখতে পেলাম তখন প্রচ- এক হতাশা আমাকে গ্রাস করে। প্রথমেই কি করতে হবে আমি কিছুই বুঝতে পারছিলাম না। আমার মনে হয় না, কারো জীবনে আকস্মাৎ এভাবে একটি পরিবর্তনের জন্য কেউ প্রস্তুত থাকে। বিশেষ করে, যখন তা ঘটে যায় পরিকল্পনাবিহীন।
এ বিষয়ে অনেক দিন ধরে আমি ভেবেছি। তারপর সিদ্ধান্ত নিয়েছি, বাচ্চাটাকে ধারণ করার জন্য। কিন্তু প্রথম ৩টি মাস ছিল খুবই কষ্টের। আমি কোনো কৌতুক করছি না। কারণ, এর সাথে যুক্ত ছিল আবেগ।

এবিএন/এফএম

চেক করুন

এক রাতের জন্য ১ কোটি টাকা

এক রাতের জন্য ১ কোটি টাকা

এক রাতের জন্য ১ কোটি টাকা মিটু বিতর্কে কয়েক দিন আগে অভিযোগের বন্যা বয়ে গিয়েছিল …

আবার কী ঘটাচ্ছেন রণবীর!!!

আবার কী ঘটাচ্ছেন রণবীর!!!

পোশাক বদলানোর মতো তিনি নাকি সঙ্গী বদলান। বি-টাউনে এমনই রটনা রণবীর কাপূরের নামে। বলিউডের দুই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *