বিসিবির এনওসি-নাটকের অবসান : আরব আমিরাতে খেলতে পারবেন সাকিব — all-banglanews
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০১৯
হোম / খেলাধুলা / বিসিবির এনওসি-নাটকের অবসান : আরব আমিরাতে খেলতে পারবেন সাকিব

বিসিবির এনওসি-নাটকের অবসান : আরব আমিরাতে খেলতে পারবেন সাকিব

বিসিবির এনওসি-নাটকের অবসান : আরব আমিরাতে খেলতে পারবেন সাকিব
বিসিবির এনওসি-নাটকের অবসান : আরব আমিরাতে খেলতে পারবেন সাকিব

নানা জল্পনা-কল্পনার পর অবশেষে সাকিব আল হাসানকে অনাপত্তিপত্র (এনওসি) প্রদানের বিষয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নাটকের অবসান হয়েছে। ফলে আগামী ডিসেম্বরে সাকিবের আরব আমিরাতে একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট খেলার বাধা কাটল। এর আগে বিসিবির এই অনাপত্তিপত্র প্রদান নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছিল। অর্থাৎ অবশেষে সাকিব সেটা পাচ্ছেন। প্রথমে জানা গিয়েছিল, বিসিবি সাকিবকে এনওসি দেবে না। কারণ বাঁহাতি অলরাউন্ডারের আঙুলের চোট নিয়ে তারা ভীষণ উদ্বিগ্ন। বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান সংবাদমাধ্যমকে বলেন, মেডিকেল প্রতিবেদন ইতিবাচক হলে তাঁরা সাকিবকে এনওসি দেবেন। আজ বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরীও জানান, সাকিবের খেলা নিয়ে তাঁদের আপত্তি নেই, চোটের ভালো অগ্রগতি হয়েছে বলেই তাঁকে আমরা এনওসি দিচ্ছি। যদি আঙুলে ব্যথা বা কোন সমস্যা থাকে, আমাদের বলতে হবে না, সে নিজেই খেলবে না।
এর আগে গত জানুয়ারিতে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে আঙুলে চোট পান সাকিব। মার্চে নিদাহাস ট্রফি দিয়ে ফেরার পর টানা খেলে গেছেন ৭ মাস। গত এশিয়া কাপে আঙুলের চোটটা গুরুতর আকার ধারণ করে। টুর্নামেন্টে সেমিফাইনালে রূপ নেয়া পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ না খেলেই দেশে ফিরে আসতে বাধ্য হন। আঙুলে মারাত্মক সংক্রমণ হওয়ায় ঢাকার একটি হাসপাতালে জরুরি অস্ত্রোপচার করে পুঁজ বের করা হয় সাকিবের। পরে আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে সাকিব অস্ট্রেলিয়া যান। সেখানে চিকিৎসকেরা বলেন, আঙুলে অস্ত্রোপচার করাতে অপেক্ষা করতে হবে তাঁকে। এখন তিনি পুনর্বাসনপ্রক্রিয়ার মধ্যে আছেন। খেলছেন না জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চলতি সিরিজে। আঙুলের ব্যথা অনেকটাই কমে গেছে। খুব শিগগির শুরু করবেন স্ট্রেংথ ট্রেনিং।

এবিএনওয়ার্ল্ড/আলিফ

চেক করুন

অসুস্থদের জন্য রোজা রাখার নিয়ম

অসুস্থদের জন্য রোজা রাখার নিয়ম

রোজা আল্লাহর ফরজ বিধান। অনেকে না জানার কারণে কঠিন অসুস্থ হয়েও রোজা রাখেন। অথচ ইসলামী …

২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন

২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন

আগামী ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের জন্য ২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকার বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *