মুক্তি পেলেন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম — all-banglanews
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০১৯
হোম / অপরাধ / মুক্তি পেলেন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম

মুক্তি পেলেন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম

মুক্তি পেলেন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম
মুক্তি পেলেন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম

ঢাকা : কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রায় সাড়ে ৩ মাস বন্দী থাকার পর জামিনে মুক্তি পেয়েছেন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম। মঙ্গলবার রাত সোয়া ৮টার দিকে তিনি কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুবুল ইসলাম। তিনি বলেন, শহিদুল আলমের জামিনের কাগজপত্রে ঠিকানা নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছিল। সেটা সংশোধনের জন্য আদালতে পাঠানো হয়। সন্ধ্যায় সে কাগজপত্র পুনরায় কারাগারে এলে সেটা যাচাইবাছাই করে তাঁকে মুক্তি দেয়া হয়।
এর আগে গত ৫ আগস্ট রাতে রাজধানীর ধানমন্ডির বাসা থেকে শহিদুল আলমকে তুলে নেয় গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। ৬ আগস্ট পুলিশ তাঁকে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেপ্তার দেখায়। শহিদুল আলমের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি ঢাকায় নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে উসকানি দিয়েছিলেন। পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলে, শহিদুল আলম তাঁর ফেসবুক টাইমলাইনের মাধ্যমে দেশি-বিদেশি ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমে কল্পনাপ্রসূত অপপ্রচার চালাচ্ছেন। এর মাধ্যমে জনসাধারণের বিভিন্ন শ্রেণিকে শ্রুতিনির্ভর (যাচাইবাছাই ছাড়া কেবল শোনা কথা) মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করে উসকানি দিয়েছেন, যা রাষ্ট্রের জন্য ক্ষতিকর। সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ ও অকার্যকররূপে আন্তর্জাতিক পরিম-লে উপস্থাপন করেছে।
কারাগার থেকে বের হওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় শহিদুল আলম বলেন, মুক্তি তো প্রত্যেকের কামনা। স্বাধীন বাংলাদেশে স্বাধীন নাগরিকেরা মুক্ত থাকবে, সেটাই স্বাভাবিক। কিন্তু স্বাধীন নাগরিকেরা যদি তাদের মুক্তচিন্তা বা স্বাধীনভাবে কথা না বলতে পারে, তাহলে তারা পরাধীন।

এবিএন/এফএম

চেক করুন

অসুস্থদের জন্য রোজা রাখার নিয়ম

অসুস্থদের জন্য রোজা রাখার নিয়ম

রোজা আল্লাহর ফরজ বিধান। অনেকে না জানার কারণে কঠিন অসুস্থ হয়েও রোজা রাখেন। অথচ ইসলামী …

২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন

২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন

আগামী ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের জন্য ২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকার বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *