অর্থ আত্মসাৎ মামলা : সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা – ABNWorld
ঢাকা । রবিবার, ১৬ আগস্ট, ২০২০, ১লা ভাদ্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে জিলহজ, ১৪৪১ হিজরি
হোম / অপরাধ / অর্থ আত্মসাৎ মামলা : সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

অর্থ আত্মসাৎ মামলা : সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

অর্থ আত্মসাৎ মামলা : সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

এবার অর্থ আত্মসাতের একটি মামলায় রিমান্ডে থাকা রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম ওরফে মো. সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। ঢাকা মহানগর হাকিম হাবিবুর রহমান এই গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উত্তরা পশ্চিম থানার একটি প্রতারণার মামলায় সাহেদ বর্তমান ১০ দিনের রিমান্ডে রয়েছেন। এই প্রসঙ্গে সংশ্লিষ্ট আদালতের পেশকার মেহেদী বলেন, ২০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সোমবার এক ব্যবসায়ী আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন। এনিয়ে সাহেদের বিরুদ্ধে ৩টি মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। এর আগে ১৩ জুলাই অর্থ আত্মসাতের ২ মামলায় ঢাকা মহানগর হাকিম মঈনুল ইসলাম তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।
এছাড়া সাহেদের বিরুদ্ধে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় আরও একটি প্রতারনা মামলা দায়ের করা হয়েছে। এনিয়ে আজ পর্যন্ত প্রতারক সাহেদের নামে উত্তরা পশ্চিম থানায় ১১টি মামলা করা হয়েছে। সোমবার দিবাগত মধ্যরাতে প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে মামলা করেছেন মেট্রো রেল নির্মাণ কাজের সঙ্গে জড়িত একটি সাব-কন্ট্রাক্টর প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানের ৭৬ জন শ্রমিক ও কর্মচারীদের করোনা পরীক্ষা করানো হয়েছিল রিজেন্ট হাসপাতাল থেকে।
মঙ্গলবার উত্তরা পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তপন চন্দ্র সাহা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মেট্রো রেল নির্মাণের কাজ করছে এমন একটি সাব-কন্ট্রাক্টর প্রতিষ্ঠানের মো. রেজাউল করিম বাদি হয়ে সোমবার রাতে মামলাটি করেছেন। ১৫ জুলাই ভোরে সাতক্ষীরার সীমান্ত এলাকা থেকে সাহেদকে গ্রেফতার করা হয়। পর দিন উত্তরা পশ্চিম থানার প্রতানার মামলায় তাকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন ডিবি পুলিশ। শুনানি শেষ বিচারক ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
গত ৬ জুলাই রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখায় অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে ভুয়া করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট, করোনা চিকিৎসার নামে রোগীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়সহ নানা অনিয়ম উঠে আসে। পরে রিজেন্টের উত্তরা ও মিরপুর শাখা সিলগালা করে দেয়া হয়। এ সময় ৮জনকে আটক করা হয়। এই বিষয়ে গত ৭ জুলাই উত্তরা পশ্চিম থানায় র‌্যাব বাদি হয়ে সাহেদকে প্রধান আসামী করে ১৭ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এ নিয়ে সাহেদের বিরুদ্ধে মোট ৬১টি মামলা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এবিএনওয়ার্ল্ড/আকরাম

চেক করুন

‘জিয়া আমাকে মন্ত্রী হতে বলেছিলেন, না হলে ২৫ বছর জেলের হুমকি’

‘জিয়া আমাকে মন্ত্রী হতে বলেছিলেন, না হলে ২৫ বছর জেলের হুমকি’

রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নৃশংসভাবে হত্যা করার পর তৎকালীন …

বরেণ্য চিত্রশিল্পী মর্তুজা বশীর আর নেই

বরেণ্য চিত্রশিল্পী মর্তুজা বশীর আর নেই

একুশে পদক ও স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রশিল্পী, ভাষা সংগ্রামী মর্তুজা বশীর আর নেই। আজ রাজধানীর এভারকেয়ার …