আদালতে মজনুকে ধর্ষক হিসেবে শনাক্ত করলেন ধর্ষিতা ঢাবি শিক্ষার্থী – ABNWorld
ঢাকা । শনিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৮ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪২ হিজরি
হোম / আদালত / আদালতে মজনুকে ধর্ষক হিসেবে শনাক্ত করলেন ধর্ষিতা ঢাবি শিক্ষার্থী

আদালতে মজনুকে ধর্ষক হিসেবে শনাক্ত করলেন ধর্ষিতা ঢাবি শিক্ষার্থী

আদালতে মজনুকে ধর্ষক হিসেবে শনাক্ত করলেন ধর্ষিতা ঢাবি শিক্ষার্থী

বহুল আলোচিত ধর্ষণকাণ্ডে আসামির কাঠগড়ায় দাঁড়ানো মো. মজনুকে ধর্ষক হিসেবে শনাক্ত করলেন ধর্ষিতা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থী। আজ সোমবার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন ঢাবির সেই ধর্ষিতা তরুণী। ঢাকার ৭ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে সাক্ষ্য দেন ওই তিনি। ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম কামরুনাহার তার সাক্ষ্যগ্রহণ করেন। সাক্ষ্যে ঘটনার বর্ণনার শেষ পর্যায়ে মজনুকে ধর্ষক বলে ওই তরুণী শনাক্ত করেন বলে ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর আফরোজা ফারহানা আহমেদ অরেঞ্জ গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। সাক্ষ্য দেয়ার পর তাকে জেরা করেন আসামি মজনুর পক্ষে রাষ্ট্র নিযুক্ত আইনজীবী মো. রবিউল ইসলাম।
জজ আদালত ভবনে অবস্থিত এই ট্রাইব্যুনালে সাক্ষ্য নেয়ার সময় অন্য কাউকে এজলাসে ঢুকতে দেয়া হয়নি। এর আগেই কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয় আসামি মজনুকে। তারও আগে গতকাল রবিবার মামলার বাদী ওই তরুণীর বাবার সাক্ষ্যগ্রহণের মধ্যদিয়ে শুরু হয় আলোচিত এই মামলার বিচার কাজ।
চলতি বছরের শুরুতে অর্থাৎ গত ৫ জানুয়ারি সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস থেকে ঢাকার কুর্মিটোলা বাস স্টপেজে নামার পর ওই ছাত্রীকে মুখ চেপে ধরে সড়কের পাশের ঝোঁপের আড়ালে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়। এসময় অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন ওই তরুণী। জ্ঞান ফেরার পর তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান চিকিৎসা নিতে। পরে তার বাবা ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা করেন।
এদিকে ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় উত্তাল হয়ে ওঠে। বিভিন্ন সংগঠনও নানা কর্মসূচি পালন করে। ওই তরুণীর কাছে বর্ণনা শুনে ৮ জানুয়ারি গাজীপুর থেকে গ্রেপ্তার করা হয় মজনুকে। ১৬ জানুয়ারি তিনি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। নোয়াখালীর হাতিয়ায় মজনু (৩০) জীবিকার তাগিদে বছর দশেক আগে ঢাকায় আসেন। তিনি সিরিয়াল রেপিস্ট বলে র‌্যাবের ভাষ্য।
২ মাস পর গত ১৬ মার্চ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক আবু বকর সিদ্দিক আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। তাতে শুধু মজনুকেই আসামি করা হয়। রাষ্ট্রপক্ষে সাক্ষী করা হয় ১৬ জনকে। ভুক্তভোগীর পোশাক ও মোবাইল ফোনসহ ২০টি আলামত জমা দেয়া হয় আদালতে। গত ২৬ আগস্ট ভার্চুয়ালি শুনানিতে মজনুর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন হয়। তখন তিনি নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করেন।

এবিএনওয়ার্ল্ড/আকরাম

চেক করুন

নড়াইলে অবসরপ্রাপ্ত কলেজ শিক্ষককে গলাকেটে হত্যা

নড়াইলে অবসরপ্রাপ্ত কলেজ শিক্ষককে গলাকেটে হত্যা

নড়াইলের পল্লীতে একটি বেসরকারি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক অরুণ কুমার রায়কে নিজ বাড়িতে গলাকেটে হত্যা করেছে …

আজ মহাঅষ্টমী

আজ মহাঅষ্টমী

শ্রী শ্রী দুর্গা দেবীর নবপত্রিকা প্রবেশ স্থাপন সপ্তম্যাদি কল্পারম্ভের মধ্য দিয়ে আজ শেষ হয়েছে সপ্তমী …