গ্যাসের দাম বৃদ্ধি : ৭ জুলাই সারাদেশে আধাবেলা হরতাল - all-banglanews
ঢাকা। শনিবার, ৫ শ্রাবণ, ১৪২৬; ২০ জুলাই, ২০১৯; ১৫ জিলক্বদ, ১৪৪০
হোম / অর্থনীতি / গ্যাসের দাম বৃদ্ধি : ৭ জুলাই সারাদেশে আধাবেলা হরতাল

গ্যাসের দাম বৃদ্ধি : ৭ জুলাই সারাদেশে আধাবেলা হরতাল

গ্যাসের দাম বৃদ্ধি : ৭ জুলাই সারাদেশে আধাবেলা হরতাল
গ্যাসের দাম বৃদ্ধি : ৭ জুলাই সারাদেশে আধাবেলা হরতাল

গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে আগমী ৭ জুলাই রবিবার সারাদেশে আধাবেলা হরতাল ডেকেছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। আজ সোমবার দুপুরে বাম গণতান্ত্রিক জোটের কেন্দ্রীয় পরিচালনা পরিষদের এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভা শেষে বাম গণতান্ত্রিক জোটের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
এতে বলা হয়, জনস্বার্থ উপেক্ষা করে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে, সিলিন্ডার গ্যাসের দাম কমানোর দাবিতে এবং গণ দুর্ভোগের বাজেটের প্রতিবাদে আগামী ৭ জুলাই দেশব্যাপী অর্ধদিবস (সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত) হরতালের ডাক দিয়েছে বাম গণতান্ত্রিক জোট।
বাম জোটের শরিক দল সিপিবির নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, ছয় তারিখের মধ্যে গ্যাসের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহার করা না হয়, তাহলে ৭ তারিখে সারাদেশে সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত সর্বাত্মক হরতাল পালন করা হবে। এরপরে আরো কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।
সমাজের বিভিন্ন অংশের আপত্তির মধ্যেই সব পর্যায়ে গ্যাসের দাম গড়ে ৩২.৮ শতাংশ বাড়িয়েছে সরকার, যা কার্যকর হবে জুলাইয়ের প্রথম দিন থেকেই। আবাসিক গ্রাহকদের এক চুলার জন্য মাসে ৯২৫ টাকা এবং দুই চুলার জন্য ৯৭৫ টাকা দিতে হবে, যা এতদিন ছিল যথাক্রমে ৭৫০ টাকা ও ৮০০ টাকা।
গৃহস্থালিতে মিটারে যারা গ্যাসের বিল দেন, তাদের প্রতি ঘনমিটার গ্যাসের ব্যবহারের জন্য ১২ টাকা ৬০ পয়সা করে দিতে হবে। এতদিন প্রতি ঘনমিটারে তাদের বিল হত ৯ টাকা ১০ পয়সা। অর্থাৎ, রান্নার গ্যাসের জন্য চুলাভিত্তিক গ্রাহকদের প্রতি মাসে ২৩ শতাংশ এবং মিটারভিত্তিক গ্রাহকদের ৩৮ শতাংশ বেশি অর্থ খরচ হবে।
যানবাহনে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত রূপান্তরিত প্রাকৃতিক গ্যাসের (সিএনজি) দাম সোমবার থেকে প্রতি ঘনমিটারে ৩৮ টাকা থেকে বেড়ে ৪৩ টাকা হবে। এই হিসাবে গাড়ির গ্যাসের জন্য মালিকদের খরচ বাড়বে সাড়ে ৭ শতাংশ। স্বাভাবিকভাবেই গণপরিবহনে এর প্রভাব পড়বে; এর মাসুল দিতে হবে যাত্রীদের।
জোটের সমন্বয়ক ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় উপস্থিত ছিলেন কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম, বাসদ সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, বাসদ (মার্কসবাদী)’র শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির মমিনুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক আব্দুস সাত্তার, বজলুর রশীদ ফিরোজ, সাজ্জাদ জহির চন্দন, আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন, রুহিন হোসেন প্রিন্স, মানস নন্দী, ফখরুদ্দিন কবীর আতিক, বাচ্চু ভূঁইয়া, জুলহাসনাইন বাবু।

এবিএন/এফএম

চেক করুন

বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ এক ও অভিন্ন : এইচ টি ইমাম

বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ এক ও অভিন্ন : এইচ টি ইমাম

প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম বলেছেন, বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশ এক ও অভিন্ন। বঙ্গবন্ধু শুধু …

ট্রাম্পের কাছে করা প্রিয়া সাহার অভিযোগ সঠিক নয় : মার্কিন রাষ্ট্রদূত

ট্রাম্পের কাছে করা প্রিয়া সাহার অভিযোগ সঠিক নয় : মার্কিন রাষ্ট্রদূত

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহা নামক জনৈক বাংলাদেশী নারী সংখ্যালঘু নির্যাতন বিষয়ে …