দেশের বাজারে ভোজ্যতেলের দাম নির্ধারণ – ABNWorld
ঢাকা । মঙ্গলবার, ২ মার্চ, ২০২১, ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই রজব, ১৪৪২ হিজরি
হোম / অর্থনীতি / দেশের বাজারে ভোজ্যতেলের দাম নির্ধারণ

দেশের বাজারে ভোজ্যতেলের দাম নির্ধারণ

দেশের বাজারে ভোজ্যতেলের দাম নির্ধারণ

অবশেষে দেশের বাজারে ভোজ্যতেলের দাম নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার। আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আয়োজিত অত্যাবশ্যকীয় পণ্য বিপণন ও পরিবেশক বিষয়ক জাতীয় কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। নির্ধারিত দাম অনুযায়ী খুচরা বাজারে খোলা সয়াবিন ১১৫ টাকা লিটারে বিক্রি হবে। বোতলজাত সয়াবিনের লিটার বিক্রি হবে ১৩৫ টাকায় । এছাড়া পাম সুপার বিক্রি হবে ১০৪ টাকা লিটার দরে। সভা শেষে ব্রিফিংয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি এই তথ্য জানান। তিনি বলেন, অত্যাবশ্যকীয় পণ্য বিপণন-সংক্রান্ত সরকারি ও ব্যবসায়ী সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত জাতীয় কমিটি ভোজ্যতেলের মূল্য নির্ধারণ করেছে। নির্ধারিত মূল্যে ভোজ্যতেল বিক্রি নিশ্চিত করা হবে। প্রসঙ্গত বেশ কিছুদিন ধরেই ভোজ্যতেলের বাজারে অস্থিরতা বিরাজ করছে। দফায় দফায় বাড়ছে তেলের দাম। চলতি মাসে দাম বেড়ে ১০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থানে উঠে আসে।
আন্তর্জাতিক বাজারে ভোজ্যতেলের দাম কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে জাতীয় কমিটি ভোজ্যতেলের মধ্যে প্রতি লিটার সয়াবিন (খোলা) মিলগেটে ১০৭ টাকা, পরিবেশক মূল্য ১১০ টাকা এবং খুচরা মূল্য ১১৫ টাকা নির্ধারণ করেছে। প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন মিলগেট মূল্য ১২৩, পরিবেশক মূল্য ১২৭ এবং খুচরা বিক্রয়মূল্য ১৩৫ টাকা নির্ধারণ করেছে। ৫ লিটারের বোতলজাত সয়াবিন মিলগেট মূল্য ৫৯০, পরিবেশক মূল্য ৬১০ এবং খুচরা বিক্রয় মূল্য ৬৩০ টাকা। প্রতি লিটার পাম সুপার (খোলা) তেলের মিলগেট মূল্য ৯৫, পরিবেশক মূল্য ৯৮ এবং খুচরা বিক্রয়মূল্য ১০৪ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আসন্ন পবিত্র রমজান মাসকে সামনে রেখে পর্যাপ্ত মজুত সৃষ্টি করতে হবে, যাতে কোনো অবস্থাতেই নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সংকট না হয়। এ জন্য সরকার প্রয়োজনীয় সব ধরনের সহযোগিতা প্রদান করবে। এ ছাড়া আন্তর্জাতিক বাজারদরের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে নিয়মিত সভা করে ভোজ্যতেলের মূল্য পুনঃনির্ধারণ করা হবে।
বাণিজ্যসচিব মো. জাফর উদ্দীনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বাবলু কুমার সাহা, বিএফটিআইয়ের পরিচালক মো. ওবায়দুল আজম, বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশনের সদস্য (বাণিজ্যনীতি) আবু রায়হান আলবেরুনী, এনবিআরের সদস্য (শুল্ক) সৈয়দ গোলাম কিবরিয়া, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (রপ্তানি) মো. হাফিজুর রহমান, ডব্লিউটিও সেলের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. হাফিজুর রহমান, মেঘনা গ্রুপের চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল, টিকে গ্রুপের পরিচালক মো. সফিউল আফসার তাজলিম, সিটি গ্রুপের উপদেষ্টা অমিতাভ চক্রবর্তী, এস আলম গ্রুপের সিনিয়র মহাব্যবস্থাপক কাজী সালাহ উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ। এছাড়া জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থা ডিজিএফআই এবং এনএসআইয়ের প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

এবিএনওয়ার্ল্ড/আলিফ

চেক করুন

করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি

করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ মোদি করোনাভাইরাসের টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। স্থানীয় সময় সোমবার সকালে দিল্লির …

‘বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করবে ভারত’

‘বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করবে ভারত’

বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারতেও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম …