শৈত্যপ্রবাহের সাথে ঘন কুয়াশা : কনকনে শীতে বাংলাদেশ জুবুথুবু – ABNWorld
ঢাকা । বৃহস্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী
হোম / পরিবেশ / শৈত্যপ্রবাহের সাথে ঘন কুয়াশা : কনকনে শীতে বাংলাদেশ জুবুথুবু

শৈত্যপ্রবাহের সাথে ঘন কুয়াশা : কনকনে শীতে বাংলাদেশ জুবুথুবু

শৈত্যপ্রবাহের সাথে ঘন কুয়াশা : কনকনে শীতে বাংলাদেশ জুবুথুবু

দেশব্যাপী শৈত্যপ্রবাহের সাথে ঘন কুয়াশার ফলে কনকনে শীতে পুরো বাংলাদেশই এখন জুবুথুবু। সবখানে বইছে উত্তরী হিমেল হাওয়া। এদিকে এমন শীতের তীব্রতার মধ্যে দিনভর ঘন কুয়াশা আর হিমেল হাওয়া আরও ২-৩ দিন অব্যাহত থাকবে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। গতকাল রবিবার আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বলেন, কুয়াশা ও জলীয় বাষ্পে আর্দ্রতা বেশি হওয়ায় শীতও তীব্র অনুভূত হচ্ছে। এ সময় কুয়াশাস্তর নিচে নেমে আসায় মেঘলা আবহাওয়াও বিরাজ করছে। এর আগের দিন শনিবার সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে রংপুরের রাজারহাটে ৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
আবহাওয়াবিদ হাফিজ বলেন, দিন-রাতের তাপমাত্রা দুয়েকদিন কমবে। ফলে এই দফায় চলমান শৈত্যপ্রবাহ আরও কয়েকদিন অব্যাহত থাকবে। ১৫ জানুয়ারির পর তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করবে। বাংলাদেশে ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শীত মৌসুম ধরা হয়। তবে জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে বাংলা পঞ্জিকার মাঘ মাসের শুরুতে বরাবরই শীতের তীব্রতা বাড়ে।
জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কে ঘন কুয়াশার কারণে দৃষ্টি সীমা অনেকাংশে কমে আসে। এর কারণে সামনের পথচারী ও বিপরীত দিক থেকে আসা যানবাহন সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যায় না। ফলে দুর্ঘটনার আশঙ্কা থাকে। এই অবস্থায় বাস্ট্যান্ডে অবস্থানরত ও মহাসড়কে চলাচলরত যানবাহনের চালকদের কুয়াশাচ্ছন্ন রাস্তায় ফগলাইট ব্যবহার ও গতিসীমা সীমিত রেখে বেশি সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
এর আগে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ চলতি মাসে ৩টি শৈত্যপ্রবাহের আভাস দিয়েছিলেন। মাসের মাঝামাঝি সময়ে দ্বিতীয়টি বইছে। মাসের শেষ সপ্তাহে আরেকটি তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাওয়ার কথা। এবারের শীত মৌসুমে ডিসেম্বরের শেষার্ধে দুটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যায় দেশের বিভিন্ন এলাকায়।
প্রসঙ্গত গত ২৯ ডিসেম্বর তেঁতুলিয়ায় থার্মোমিটারের পারদ নেমেছিল ৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। এ মৌসুমে এটাই দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। আর নতুন বছরের শুরুতে ৭ জানুয়ারি পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় তাপমাত্রা নামে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস বা কম থাকলে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে বলে ধরা হয়। থার্মোমিটারের পারদ ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে হলে তাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বলে। আর পারদ ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসেরনিচে নেমে গেলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ চলছে বলে ধরা হয়।

এবিএনওয়ার্ল্ড/রোজা

চেক করুন

গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড : ৫ জনের মৃত্যু

গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড : ৫ জনের মৃত্যু

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাস মহামারীর আতঙ্কের মধ্যে রাজধানীর গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের …

মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ফেসবুকে ভিডিও প্রচার : কিশোর গ্রেপ্তার

মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ফেসবুকে ভিডিও প্রচার : কিশোর গ্রেপ্তার

মাদ্রাসার এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করে এর ভিডিও ছড়িয়ে দিল ফেসবুকে। এই ঘটনায় মামলা দায়েরের পর …