সহজে বহনযোগ্য ভেন্টিলেটর মেশিন উদ্ভাবন করল বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি – ABNWorld
ঢাকা । সোমবার, ১ জুন, ২০২০, ১৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৯ই শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী
হোম / বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি / সহজে বহনযোগ্য ভেন্টিলেটর মেশিন উদ্ভাবন করল বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি

সহজে বহনযোগ্য ভেন্টিলেটর মেশিন উদ্ভাবন করল বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি

সহজে বহনযোগ্য ভেন্টিলেটর মেশিন উদ্ভাবন করল বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির ইনোভেশন ল্যাব ও তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগের যৌথ উদ্যোগে সহজে বহনযোগ্য ভেন্টিলেটর মেশিনের প্রটোটাইপ তৈরি করা হয়েছে। স্বল্প মূল্যে প্রস্তুত, এই ভেন্টিলেটর মেশিনটি করোনা রুগীসহ গুরুতর শ্বাসকষ্টজনিত অসুস্থদের চিকিৎসায় অসামান্য ভূমিকা রাখতে সক্ষম। ভেন্টিলেটর মেশিনটি নির্মাণে নির্বাহী তত্ত্বাবধায়কের দায়িত্বে ছিলেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির ইনোভেশন ল্যাবের প্রধান প্রকৌশলী কাজী তাইফ সাদাত। তিনি জানান, এই ভেন্টিলেটর মেশিনটিতে মেকানিক্যাল পাম্পের বদলে ইলেক্ট্রনিক পাম্প ব্যবহার করা হয়েছে। যার ফলে মেশিনটির রক্ষণাবেক্ষণ অনেক সহজ ও যান্ত্রিক ঘর্ষণজনিত ক্ষয় কম। মেশিনটি দ্বারা সুষম বায়ু প্রবাহের জন্য দুটি ডায়াফ্রাম পাম্প ব্যবহার করা হয়েছে যা থাইরিষ্টর দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। আজ রবিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির ডেপুটি রেজিস্ট্রার (জনসংযোগ) সোহেল আহসান নিপু গণমাধ্যমকে এই তথ্য জানান।
উদ্ভাবকদের দাবি, সম্পূর্ণ কার্যপ্রণালীটি মাইক্রো কন্ট্রোলারের দ্বারা নিয়ন্ত্রন করা হয়েছে। এ মেশিনটিতে রোগীর প্রয়োজন অনুযায়ী পাম্পের গতি, শ্বাস গ্রহণ ও শ্বাস ত্যাগের সময় নিয়ন্ত্রন করা যায়।যারফলে মেশিনটি শিশু ও বয়স্ক উভয় রোগীর ক্ষেত্রে ব্যবহার উপযোগী। ভবিষ্যতে মেশিনটির সাথে হার্টরেট পর্যবেক্ষণ যন্ত্র সংযোজন করা হবে যাতে রোগীর শ্বাসপ্রশ্বাসের প্রকৃতি নির্ণয় করা যায়। এছাড়া বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের মতামতের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় পরিমার্জন করে দেশীয় প্রযুক্তির এই স্বল্প মূল্যের যন্ত্রটি কোভিড ১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত মুমূর্ষু রোগীর চিকিৎসা কাজে বাবহার করা সম্ভব। এই লক্ষ্যে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির ইনোভেশন ল্যাব ও তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগ ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

এবিএনওয়ার্ল্ড/এমআর

চেক করুন

অভ্যন্তরীণ রুটে আজ থেকে পুণরায় বিমান চলাচল শুরু

অভ্যন্তরীণ রুটে আজ থেকে পুণরায় বিমান চলাচল শুরু

বিশ্বব্যাপী মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস)-এর কারণে বিগত ২ মাসেরও বেশি সময় …

২ মাস পরে আল আকসা মসজিদের দরোজা খুলে দেয়া হল আজ

২ মাস পরে আল আকসা মসজিদের দরোজা খুলে দেয়া হল আজ

করোনা ভাইরাসের কারণে ২ মাসের বেশী সময় বন্ধ থাকার পরে মুসলমানদের অন্যতম পবিত্র স্থান আল …